কালিদাসের মেঘদূত শ্লোক ০৩৭-০৪০ (পূর্ব মেঘ) – অনুবাদ নরেন্দ্র দেব

৩৭
নিবিড় নিশার আধাঁরে যখন আবৃত সকলপথ,
অভিসারে নারী চলিবে গোপনে পুরাইতে মনোরথ,
বিজলি চমকে ক্ষণ-বিভা যেন – নিকষে কনক রেখা;
তুমি সেথা আর গরজি’ বরষি’ রচিও নাভয়-লেখা।
৩৮
গৃহবলভীতে রয়েছে যেমন সুপ্ত কপোত সুখে,
একটি রজনী থেকে যেও সেথা, আদরে ধরিয়া বুকে
ঘন বিলসনে ক্লান্ত তোমার তড়িৎ বধূরে প্রিয়
নিশান্তে পুন সমুদিলে ভানু, তুমিএসে দেখা দিও
বন্ধুজনের কার্যের ভার নিয়েছে যে মাথা পাতি
বিলম্ব করা সাজে কি তাহার? তুমি যে জীবন-সাথী।
৩৯
কাঁদিছে কমলখন্ডিতা-নারী, সূর্য আসেনি কাছে,
হায়, অভাগীর নলিন-নয়ন আখিঁজলে ভরিয়াছে।
আসিবে তপন কপট প্রণয়ী মুছাইতে আখিঁজল,
ছেড়ো ত্বরাপথ, রুধিও না তারে করিয়া কুটিল ছল।
৪০
স্বচ্ছ সলিল গম্ভীরা নদী, নির্মলবুকে তার,
তোমার ছায়াটি পড়িবে যখন ল’য়ে প্রীতি সমাচার,
চটুল সফরী নর্তনে সে যে হানিবে নয়ন-বাণ,–
বিফল কোরনা কটাক্ষ তার, সার্থক কোরো প্রাণ।
মুল শ্লোক
৩৭
গচ্ছন্তীনাং রমণবসতিং যোষিতাং তত্র নক্তং
রুদ্ধালোকে নরপতিপথে সূচিভেদ্যৈস্তমোভিঃ
সৌদামিন্যা কনকনিকষস্নিগ্ধযা দর্শযোর্বীং
তোযোত্সর্গস্তনিতমুখরো মা স্ম ভূর্বিক্লবাস্তাঃ
৩৮
তাং কস্যাং চিদ্ ভবনবলভৌ সুপ্তপারাবতাযাং
নীত্বা রাত্রিং চিরবিলসনাত্ খিন্নবিদ্যুত্কলত্রঃ
দৃষ্টে সূর্যে পুনরপি ভবান্ বাহযেদধ্বশেষং
মন্দাযন্তে ন খলু সুঃঋদামভ্যুপেতার্থকৃত্যাঃ
৩৯
তস্মিন্ কালে নযনসলিলং যোষিতাং খণ্ডিতানাং
শান্তিং নেযং প্রণযিভিরতো বর্ত্ম ভানোস্ত্যজাশু
প্রালেযাস্রং কমলবদনাত্ সোঽপি হর্তুং নলিন্যাঃ
প্রত্যাবৃত্তস্ত্বযি কররুধি স্যাদনল্পাভ্যসূযঃ
৪০
গম্ভীরাযাঃ পযসি সরিতশ্চেতসীব প্রসন্নে
ছায়াত্মাপি প্রকৃতিসুভগো লপ্স্যতে তে প্রবেশম্
তস্মাত্ তস্যাঃ কুমুদবিশদান্যর্হসি ত্বং ন ধৈর্যান্
মোঘীকর্তুং চটুলশফরোদ্বর্তনপ্রেক্ষিতানি

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s